‘দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণে সরকার চরমভাবে ব্যর্থ’

0
23

নিউজ ডেস্ক:
জাপার কে‌ন্দ্রীয় নির্বাহী ক‌মি‌টির সদস‌্য, ও সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সাবেক সাধারন সম্পাদক আ.ন.ম. ওহিদ কনা মিয়া বলেছেন দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রণে সরকার চরমভাবে ব্যর্থ। দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতিতে জনগন দিশেহারা। অসাধু কালোবাজারি ও মুনাফাখোর সিন্ডিকেটের কাছে সরকার জিম্মি হয়ে পড়েছে। সরকারদলীয় লুটেরা মুনাফাভোগী সিন্ডিকেট চক্র দফায় দফায় মূল্যবৃদ্ধির কারণে জনগণ চোখে সরষে ফুল দেখছে। চাল, ডাল, তেল, চিনিসহ নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধিতে মধ্যবিত্ত ও নিম্ন মধ্যবিত্ত শ্রেণির অবস্থা শোচনীয়। জনগণ আওয়ামী দুঃশাসন ও লুটপাট থেকে বাচঁতে চায়।

আজ বুধবার দুপুরে ছাতক উপজেলার জাপার অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে গোবিন্দগঞ্জ ট্রা‌ফিক পয়েন্টে তেল, গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানি সহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মূল্যের উর্দ্ধগতির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

জাপার সভাপ‌তি আবুল লেইছ মোহাম্মদ কাহারের সভা‌পতিত্বে ও যুবসংহ‌তির কে‌ন্দ্রীয় নির্বাহী ক‌মি‌টির সদস‌্য ও উপজেলার যুবসংহ‌তির সভাপ‌তি জ‌হিরুল ইসলাম প‌রিচালনায় অনু‌ষ্টিত বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধ‌ন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব‌্য রাখেন জাপার সাধারণ সম্পাদক সামছুদ্দীন, সে‌লিম আহমদ, আসকর আলী, সে‌লিম আহমদ, রমজান আলী, আতাউর রহমান আতা, ডাক্তার পীর আব্দুল হান্নান, ব‌্যবসা‌য়ী আব্দুল বা‌সিত, যুবসংহ‌তির আহবায়ক ক‌মি‌টির আহবায়ক ফয়জুল ইসলাস, মাওলানা হোসাইন আহমদ, অ‌লি আহমদ ছায়েদ, ইসমাইল আলী, ম‌নির মিয়া, কাপ্তান মিয়া, রা‌কিব আলী, হা‌রিছ আলী, নুরুল হক, আজমল হোসেন, ইরপান আলী, আ‌মির আলী, ছ‌মির উ‌দ্দিন, মিজানুর রহমান, রিপন আহমদ, আব্দুর নুর, এমরান আহমদ, আউয়াল মিয়া, খালেদ আহমদ, র‌ফিক আলী, রাসেল আহমদ, আব্দুল গ‌নি, আব্দুল জ‌লিল, আছমত আলী, হো‌সিয়ার আলী, আবুল খয়ের মিয়া, উসমান আলী, কাওসার শ্রমিক নেতা খছরু মিয়া, তা‌হির উ‌দ্দিন, রহমান, আবু সু‌ফিয়ান প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, সরকার কিছু লোকজন দুর্নীতি, লুটপাট ও অর্থপাচারে সফল হলেও দেশের জনগণের দুর্ভোগ দুর্দশা নিয়ে কোনো কার্যকর পদক্ষেপ নিচ্ছে না। সরকার ১০ টাকায় চাল, বিনামূল্যে সার ও ঘরে ঘরে চাকরি দেওয়ার কথা বলে ক্ষমতা ব‌সে সব ওয়াদা বেমালুম ভুলে গেছে। জনদুর্ভোগ সাধারণ মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্তকে পঙ্গু করে দিয়েছে। সরকারের কিছু এমপি-মন্ত্রী, আমলা ও দলীয় নেতাকর্মীরা দুর্নীতি, লুটপাট এবং অর্থপাচার করে দেশের অর্থনীতি ধ্বংসস্তূপে পরিণত করেছে।