২ সেঞ্চুরির আক্ষেপ, স্বস্তির লিডে দিন পার

0
25

স্পোর্টস ডেস্ক:
নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম দুই দিন অসাধারণ খেলা বাংলাদেশ তৃতীয় দিনও ধারাবাহিকতা বজায় রাখল। যেখানে নিজেদের টেস্ট ইতিহাসে এশিয়ার বাইরে প্রথমবার কোনো দেশের মাটিতে লিড নিতে সক্ষম হয়েছে দলটি।

তবে দারুণ ব্যাট করা অধিনায়ক মুমিনুলের পর সেঞ্চুরির আক্ষেপ নিয়ে মাঠ ছেড়েছেন লিটন দাসও।
তৃতীয় দিন শেষে ১৬৫ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ৪০১ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ। যেখানে ৭৩ রানের লিড পেয়েছে সফরকারীরা। ইয়াসির আলী ৩৫ বলে ১১ ও মেহেদী হাসান মিরাজ ৩৮ বলে ২০ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছেড়েছেন।

এর আগে দলীয় ১৪১তম ওভারের শেষ বলে ট্রেন্ট বোল্টের বলে এলবির ফাঁদে পড়েন মুমিনুল হক। রিভিউ নিলেও রিপ্লেতে আউটই হন এই বাঁহাতি। ব্যক্তিগত ৮৮ রানে বিদায় নেন তিনি। ২৪৪ বলের ইনিংসে তিনি ১২টি চার হাঁকান। পঞ্চম উইকেট জুটিতে লিটন দাসকে নিয়ে মুমিনুল ৩১৭ বলে ১৫৮ রানের পার্টনারশিপ গড়েছিলেন।

মুমিনুলের পর হতাশ হয়েছেন লিটনও। ব্যক্তিগত ৮৬ রানে তিনি বোল্টের বলেই উইকেটরক্ষক টম ব্লান্ডেলকে ক্যাচ দেন। এই ডানহাতি ব্যাটার ১৭৭ বলে ১০টি চারে নিজের ইনিংস সাজিয়েছিলেন।

টাইগার অধিনায়ক মুমিনুল হক ১৪৭ বলে টেস্ট ক্যারিয়ারের ১৫তম হাফসেঞ্চুরি করেন। পরে দলীয় ৩০০’র পর ফিফটি আসে লিটনের ব্যাট থেকেও। এই ডানহাতি ৯৩ বলে ক্যারিয়ারের ১১তম হাফসেঞ্চুরির দেখা পান। পঞ্চম উইকেট জুটিতে এ দুজন সেঞ্চুরি পার্টনারশিপও গড়েন।

সোমবার মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টের দ্বিতীয় দিনে ৭০ রানে অপরাজিত থাকা মাহমুদুল হাসান জয় এদিন মাত্র ৮ রান যোগ করেই ফিরে যান। নেইল ওয়াগনারের বলে হেনরি নিকোলসকে ক্যাচ দেন তিনি। তার ৭৮ রানের ইনিংসটি ছিল ২২৮ বলে ৭টি চারে সাজানো।

এরপর উইকেটে অনেক্ষণ টিকে থাকলেও ইনিংস বড় করতে পারেননি মুশফিকুর রহিম। ট্রেন্ট বোল্টের বলে বোল্ড হওয়ার আগে ৫৩ বলে একটি চারে ১২ রান করেন দেশসেরা এই ব্যাটার।

এর আগে দ্বিতীয় দিন শেষে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ২ উইকেট হারিয়ে ১৭৫ রান করে বাংলাদেশ। যেখানে নিউজিল্যান্ড প্রথম ইনিংসে ৩২৮ রানে থামে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here