এক ম্যাচে কতবার নো বল করলেন স্টোকস

0
21

খেলা ডেস্ক:
২০২১-এ এসে যেন ২০১৩-১৪ অ্যাশেজই ফিরিয়ে আনলেন বেন স্টোকস। সেবার ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট উইকেটটা পেতে পেতেও পাননি ইংলিশ এই অলরাউন্ডার। এবার ‘অনির্দিষ্টকালের’ বিরতি শেষে ফেরার পর প্রথম উইকেটটা থেকে বঞ্চিত হলেন। ডেভিড ওয়ার্নারের স্টাম্প উপড়ে ফেলেছিলেন তিনি। তবে উইকেটটা পাওয়া হলো না তার।

তবে যে কারণে উইকেটটা পেলেন না তিনি, সে কারণটা খুঁজতে গিয়েই বেরিয়ে এসেছে থলের বেড়াল। রিপ্লেতে দেখা যায় তার সে বলটা ছিল নো বল, ওভারস্টেপ করে ফেলেছিলেন তিনি। এরপরই টিভিতে দেখা মিলল, শুধু সে বলটাই ‘নো’ করেননি তিনি, এর আগের তিনটি বলেও তিনি ওভারস্টেপ করেছিলেন।

স্থানীয় টিভি চ্যানেল সেভেন জানাচ্ছে, তার নো বল করা শেষ হয়নি সেখানেই, স্টোকস নিজের প্রথম পাঁচ ওভারে ওভারস্টেপ করেছেন সব মিলিয়ে ১৪ বার। ওয়ার্নারকে করা সেই ডেলিভারিটা বাদে আর যার একটাই কেবল ধরা পড়েছে একবার অনফিল্ড আম্পায়ারের কল্যাণে। এ গেল কেবল প্রথম পাঁচ ওভারের কাণ্ড। পরে কী হয়েছে, তা জানা যায়নি। তবে শুরু পাঁচ ওভারের ফুটেজ ছড়িয়ে পড়তেই শুরু হয়েছে বিতর্ক।

সমস্যাটা হয়েছে চলমান অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ড টেস্টে যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে। ক্রিকইনফো জানাচ্ছে, নো বল ধরার প্রযুক্তি ম্যাচের আগেই নষ্ট হয়ে গেছে। ফলে এখন কেবল উইকেট নেওয়া ডেলিভারিই দেখবেন টিভি আম্পায়ার।

টিভি আম্পায়ারের নো বল ধরার প্রযুক্তিটা ২০১৯ সালে পরীক্ষা করেছিল আইসিসি। ২০২০ সালে পাকিস্তানের ইংল্যান্ড সফরে যা প্রথমবারের মতো ব্যবহার করা হয়। এর ফলে এখন আর অন ফিল্ড আম্পায়ারের নো বল ডাকার এখতিয়ার নেই। যে প্রযুক্তিবলে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, সে প্রযুক্তিটাতেই গোলমাল হয়েছে চলতি অ্যাশেজের প্রথম টেস্টে। তাতেই এমন বিপর্যয়।

পানি পানের বিরতির সময় অধিনায়ক জো রুটকে এ নিয়ে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি উত্তর দিয়েছেন বেশ কূটনৈতিকভাবেই। বলেছেন, ‘কিছুটা হতাশার, কিন্তু একে আমাদের জন্য বড় সমস্যা হতে দেওয়া চলবে না মোটেও।’

শুধু নো বল ধরার প্রযুক্তিই নয় অবশ্য, চলমান ব্রিসবেন টেস্টে প্রযুক্তি বিভ্রাট ঘটেছে আরও এক ক্ষেত্রে। টিভি আম্পায়ারের জন্য এই টেস্টে নেই স্নিকো মিটারও, যার ফলে আউটের সিদ্ধান্তে কেবল হটস্পট প্রযুক্তির দিকেই তাকিয়ে থাকতে হচ্ছে আম্পায়ারকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here