নরসিংদী নির্বাচনী প্রচারণায় বিএনপি নেতাদের গ্রেফতারে তীব্র নিন্দা

0
369

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, নরসিংদী:
নরসিংদী পৌর নির্বাচন উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারী) সন্ধ্যায় ধানের শীষের নির্বাচনী প্রচারণা চালানো কালিন-নরসিংদী শহরের হেমেন্দ্র সাহার মোড় থেকে নরসিংদী সরকারি কলেজের সাবেক জি এস দীপক কুমার বর্মন প্রীন্স, এ জি এস চৌধুরী সুমন ও জেলা ছাত্রদল নেতা তুষার কে ডিবি পুলিশ গ্রেফতার করে।
আগামী ১৪ই ফেব্রুয়ারী নরসিংদী পৌরসভা নির্বাচনে ধানের শীষের বিজয় রুখে দিতেই এই গ্রেফতার করা হয়েছে বলে দাবী করছেন ধানের শীষ প্রার্থী হারুন অর রশিদ এর সমর্থকরা

হারুন অর রশিদ এর সমর্থকরা বিভিন্ন ফেসবুক পোষ্টের মাধ্যমে তাঁরা এই কারণবিহীন গ্রেফতারের দরুণ প্রবিবাদ ও তীব্র নিন্দা জানিয়ে তাঁরা অনতিবিলম্বে ছাত্রদল নেতাদের মুক্তি দাবি করেছেন।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার নরসিংদীর ৫ নং ওয়ার্ড দত্তপড়া (বেপারীপাড়া),সাটির পাড়া ৬ নং ওয়ার্ডে গণসংযোগের মাধ্যমে হরুন অর রশিদ হারুনের ধানের শীষ মার্কা নিয়ে ইউ এম সি কেম্প সহ অনন্য সকল কেম্পগুলো পরিদর্শন করেন প্রার্থী ও তার দলীয় নেতা-কর্মীরা।
সেই সাথে নরসিংদী জেলা বিএনপি সভাপতি ও দলের যুগ্ম সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন এবং ধানের শীষ প্রার্থী হারুন অর রশিদ হারুনসহ সকল সমর্থকরা একটি গণপ্রচার চালান।
প্রচারে স্লোগান ছিল “হারুন ভাইয়ের সালাম নিন ধানের শীষে ভোট দিন/ খোকন ভাইয়ের সালাম নিন ধানের শীষে ভোট দীন,”

এই প্রচারটির পর পরপই দীপক কুমার বর্মন প্রীন্স, এ জি এস চৌধুরী সুমন ও জেলা ছাত্রদল নেতা তুষারকে গ্রেফতার করা হয়।

এই ব্যাপারে ধানের শীষ প্রার্থী হারুন অর রশিদ এর ছোট মামা আবুল কালাম মইশান বলেন, ‘তাঁদের গ্রেফতার করার কোন উপযুক্ত কারণ নেই। তাঁরা কোন মিটিং-মিছিলে ছিলনা। কোন সহিংসতার ঘটনায় ছিলনা। এটা করার একমাত্র উদ্দেশ্য হল বিএনপি প্রার্থীর প্রচারনায় ব্যাঘাত ঘটানো এবং জনমতে আতঙ্ক তৈরী করা।“

নরসিংদী পৌরসভার নির্বাচন নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই চলছে শহরটি জুড়ে উত্তেজনা। এর আগেও নরসিংদী শিশু মিলনায়তনের এক মত সমাবেশে নৌকা প্রার্থীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে ভাঙচুর এবং হামলার বিরুদ্ধে প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছিলেন বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মোবাইল ফোন প্রতীকের এসএম কাইয়ুম। এরপর গত ৯ ফেব্রুয়ারী ৪টি প্রচারণা ক্যাম্প ভেঙ্গে ফেলায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন ধানের শীষ প্রার্থী হারুন ‌অর রশিদ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here