নৌকা প্রার্থী বাচ্চু বলেছিলেন সংঘাত হবেনা: শামস্ আহমেদ নিলয়

0
143

দৈনিকসত্যপ্রকাশ ডেস্ক:
আসন্ন নরসিংদী পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী হারুন অর রশিদ এর নির্বাচনী ক্যাম্প,পোস্টার প্রচার মাইক ও কর্মীদের উপর হামলার প্রতিবাদে গতকাল(৯ ফেব্রুয়ারী) একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। নরসিংদী বাজীরমোড় সড়কে বিক্ষোভ মিছিলটি পরিচালনা করেছে নরসিংদী জেলা ছাত্রদল।

জানা যায় যে, মঙ্গলবার কাউরিয়াপাড়া, ইউ এম সি, তে বিএনপি প্রার্থীর পক্ষ থেকে জনসংযোগের আয়োজন করা হয়। কিন্তু সেখানে যাবার আগেই বিরোধী দলীয় কর্মীরা চেয়ার-টেবিল, ব্যানার ভাঙচুরসহ সকল আয়োজন পন্ড করে দেন। এতে ফুঁসে উঠেন ধানের শীষ প্রার্থীর কর্মীরা।

এ নিয়ে ক্ষুদ্ধ হারুন অর রশিদ এর পুত্র আহমেদ নিলয় শামস্ জানান, এটাই প্রথম নয়। এর আগেও শহরটির বিভিন্ন এলাকায় ধানের শীষ প্রার্থী হারুন অর রশিদ এর পোষ্টার সহ ধানের ছড়াগুলো ছিঁড়ে মাটিতে ফেলে দেয়া হয়েছিল।

এ নিয়ে নৌকা প্রতীকের সমর্থকদের বিরুদ্ধে নরসিংদী পৌর নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হারুনুর রশিদের মোট ৪টি ও স্বতন্ত্র প্রার্থী (আ.লীগের বিদ্রোহী) এস এম কাইয়ুমের ৩টি নির্বাচনী প্রচার ক্যাম্প ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার দুপুর ২টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত, মাত্র দুই ঘন্টার ব্যবধানে বিএনপি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মোট ৭টি ক্যাম্প ভাংচুরের ঘটনা ঘটে।

নিলয় বলেন, ‘আমার বাবা হারুন অর রশিদ নৌকা প্রতিকের প্রার্থী জনাব আমজাদ হোসেন (বাচ্চুর) বাড়িতে গিয়ে তার মা’কে সালাম করে এবং প্রার্থীর সাথে কোশল বিনিময় করে নির্বাচনী প্রচারনা শুরু করেছেন। ওই সময় তিনি বলেছিলেন, নির্বাচনে কোনরকম সংঘাত, হানাহানি হবে না। কিন্তু সকাল ঘনিয়ে বিকাল হতে না হতেই ভিন্ন চিত্র দেখা গেলো।’

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ধানের শীষ প্রার্থী হারুন ‌অর রশিদ তাঁর কর্মীদের শান্ত হতে আহ্বান জানিয়ে মঙ্গলবার রাত ৮টায় একটি সংবাদ সন্মেলনের আয়োজন করেন।
সন্মেলনে তিনি একটি লিখিত বক্তব্যে বলেন, ‘নির্বাচনী পরিবেশ এতদিন সুষ্ঠু থাকলেও আজ আওয়ামীলীগ সমর্থকদের নেতৃত্বে শহরের বিভিন্ন স্থানে আমার চারটি ক্যাম্পে ভাংচুর করা হয়। ক্যাম্পগুলো হল, নরসিংদী পৌর এলাকার সাটিরপাড়া, নাগরিয়াকান্দি, দত্তপাড়া এবং কাউরিয়াপাড়া এলাকার। এ সময় আমার পোস্টার ছিড়ে ফেলা এবং মাইকিংয়ে বাধা দেওয়া হয়।’

বলাবাহূল্য, এর আগেও নৌকা প্রতিকের সমর্থকদের বিরোদ্ধে সহিংসতা নিয়ে প্রসাশনের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছিলেন বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মোবাইল ফোন প্রতীকের এসএম কাইয়ুম।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি সুলতান উদ্দিন মোল্লা, সহসভাপতি মঞ্জুর এলাহী, শহর বিএনপির সভাপতি গোলাম কবির কামাল, সাধারণ সম্পাদক ফারুক উদ্দিন ভূইয়া, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আকবর হোসেন, দপ্তর সম্পাদক আমিনুল হক বাচ্চু, প্রচার সম্পাদক শাহজাহান মল্লিক, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রউফ ফকির রনি প্রমুখ।

নরসিংদীর দুটি পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি। এর মধ্যে নরসিংদী সদর ও মাধবদী পৌরসভা রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here