দীর্ঘ অপেক্ষার পর শুরু হচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট

0
17

ক্রীড়া ডেস্ক: অপেক্ষার পালা শেষ হচ্ছে। ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ দিয়ে মাঠে ফিরছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। করোনার কারণে নতুন বেশ কিছু নিয়ম যুক্ত হচ্ছে এই টেস্টে। চাপমুক্ত থেকে অধিনায়ক হিসেবে ক্যারিয়ারের নতুন ইনিংসটা স্মরণীয় করে রাখতে চান ইংলিশ অধিনায়ক বেন স্টোকস। প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজও চায় জয় দিয়ে সিরিজ শুরু করতে। সাউদাম্পটনে দু’দলের এই ম্যাচ শুরু হবে বুধবার (৮ জুলাই) বিকেল চারটায়।

১১৭ দিন পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরছে সাউদাম্পটনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ইংল্যান্ডের প্রথম টেস্টের মধ্যে দিয়ে। বলের সঙ্গে ব্যাটের সংযোগের মিষ্টি শব্দ শোনার অপেক্ষায় পুরো ক্রিকেট দুনিয়া। তবে, মাঠে নয় ঘরে বসেই দেখতে হবে তাদের ঐতিহাসিক এই ম্যাচ। ১৪৩ বছরের ক্রিকেট ইতিহাসে কখনো সন্ত্রাসী হামলা, কখনো রাজনৈতিক অস্থিরতার প্রভাবে পড়েছিলো ক্রিকেট মাঠে। কিন্তু করোনা নামক অদৃশ্য এই শত্রুর এমন ছোবল এর আগে আসেনি আর কখনোই। তাই বদলে দিতে হয়েছে ২২ গজের নানা হিসেব নিকেশ।

ক্রিকেটার থেকে ধারাভাষ্যকার, আম্পায়ার সবাইকে থাকতে হচ্ছে জৈব সুরক্ষিত বলয়ের মধ্যে। থাকবেনা লালার ব্যবহার। আর ভুল করে কেউ ব্যবহার করলেই ৫রান পেনাল্টি। মোট কথা স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভিন্ন এক রংয়ে হাজির হচ্ছে ক্রিকেট। নানা বিধি নিষেধের বেড়াজালের মাঝেও ক্রিকেট ফিরছে এতেই খুশি স্টোকস বাহিনী।

ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বেন স্টোকস বলেন, অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্বটা বেশি চ্যালেঞ্জিং। আমার ওপর চাপ আছে। তবে, আমি আস্থার প্রতিদান দিতে চাই। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম দিনটা আমাদের কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। শুরুটা ভাল করতে পারলে আমরা টেস্টের লাগাম ধরে রাখতে পারবো। দীর্ঘ বিরতিটা স্মরণীয় করে রাখতে চাই আমরা।

জো রুট না থাকায় চার নম্বরে ব্যাট হাতে নামার সম্ভাবনা উজ্জ্বল ক্রলির। নিজেদের মাটিতে অ্যান্ডারসন ও ব্রড বরাবরই দুর্দান্ত। একাদশে তাই সিলভারউড তাদের নিয়ে সবুজ সংকেতই দিয়ে রেখেছেন। আর্চার, বাটলারসহ সেরা একাদশই রাখবেন স্বাগতিক কোচ।

করোনার কারণে দীর্ঘদিন ধরেই ইংল্যান্ডে আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। কন্ডিশনের সঙ্গেও নিজেদের মানিয়ে নিয়েছে ক্যারিবীয়রা। ২০১‌৭ তে পিছিয়ে পরেও ঘুরে দাঁড়ানোর সঙ্গে ২০১৮ সালের উইজডেন ট্রফি জয়ের স্মৃতি তাজা ক্যারিবীয়দের।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক জেসন হোল্ডার বলেন, ব্যাটিং বোলিং সব বিভাগেই ভারসাম্যপূর্ণ দল আমাদের। ওরা স্বাগতিক হলেও, আমরাও কোন ছাড় দিতে চাই না। আমার দলের পেস অ্যাটাক অনেক ভালো।

আলজারি জোসেপ, কেমার রোচ, শ্যানন গ্যাব্রিয়েল, শাই হোপরা মুখিয়ে আছেন দীর্ঘ অপেক্ষার পর আসা ম্যাচটা রাঙ্গিয়ে তুলতে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here