করোনার শিক্ষা ও পরবর্তী জীবন

1
82

আরিফুল ইসলাম: করোনা তৃতীয় বিশ্বের একটা ভাইরাসের নাম।পৃথিবীর প্রায় অধিকাংশ দেশে করোনা ভাইরাস আক্রমণ করেছে।এ ভাইরাসে আক্রান্ত মানুষের পাশাপাশি মৃতের সংখ্যা কিন্তু কম নয়।করোনা মহামারির সময়ে বিশাল একটা সময় লকডাউনে ছিল পৃথিবীর মানুষ। স্বাভাবিক কাজের গতির পাশাপাশি জীবন ধারনের অনেক উপকরণ অসহজলভ্য ছিল।

করোনার ফলে অফিস আদালত স্বাভাবিক কাজকর্ম সব বন্ধ হয়ে যায়।অনেক লোক কর্মসংস্থান ও ঘরবাড়ি হারিয়েছে।সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের অনুদান সঠিক মানুষের কাছে না পৌঁছানো,সিদ্ধান্ত গ্রহনে বিলম্বের কারণে,ভূল সিদ্ধান্তের কারণে জনজীবনে ভোগান্তি নেমে এসেছে।

বিকল্প কর্মসংস্থান, পর্যাপ্ত আয়ের উৎস, একক আয়ের সীমাবদ্ধতা, দ্রব্যমূল্যের ক্রমাগত উর্ধগতি,প্রতিবেশীদের সাথে সম্পর্ক না রাখা,আত্মীয়দের সাথে সম্পর্ক না রাখা,একক পরিবার প্রভৃতি কারণে অনেকেই আর্থিক সংকটে পড়ে যা কেটে উঠা সম্ভব হয় নি।

প্রত্যেকের বিকল্প কর্মসংস্থান ও আয়ের উৎস তৈরি করতে হবে এক্ষেত্রে ছোট ব্যাবসা ও ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের কাজ করা যেতে পারে।সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে এক্ষেত্রে দীর্ঘ মেয়াদি ও মধ্য মেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহন ও বাস্তবায়ন করতে হবে।কৃষক বাঁচলে দেশ বাঁচবে এক্ষেত্রে সার,বীজ,কীটনাশক প্রভৃতি ক্ষেত্রে উন্নত প্রয়ুক্তি ব্যাবহার করতে হবে ও বিশেষ ভর্তুকি সাথে কৃষক যেন সঠিক মূল্য পায় বাজারজাতকরণের ক্ষেত্রে সকল প্রতিবন্ধকতা দূর করতে হবে।এইক্ষেত্রে ভলান্টিয়ার হিসেবে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের সহজের ব্যাবহার করা যেতে পারে।

সর্বোপরি সাধারণ মানুষকে সচেতন হতে হবে ও যার যা আছে নিয়ে অন্যের সেবায় এগিয়ে আসতে হবে।ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত সমাজ গঠনে এই হোক আমাদের সবার অঙ্গিকার।

1 COMMENT

  1. দৈনিক সত্য প্রকাশ এর ফাহাদ ভাই,রাইটার্সক্যাফে এর আমার পরিবারের সবাই বিশেষত ডার্ক এভিল আপু,হতাশা কুইন আপু সহ সবাইকে ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here