সিলেট শামসুদ্দিন হাসপাতালে চালু হয়েছে আউটডোর সেবা

0
47

নিউজ ডেস্ক:
করোনার নিম্নগতি থাকায় আবার চালু হচ্ছে সিলেট শহীদ ডা.শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের আউটডোর ( বহিঃবিভাগ) সেবা।২০মার্চ সকাল হতে বহিঃবিভাগে রোগী দেখা শুরু হয়েছে।করোনা আক্রান্ত রোগীদের সংখ্যা কমে যাওয়ার ফলে পূর্বের ন্যায় সকল বিভাগে চিকিৎসা সেবা চালু করেছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
আউটডোর সেবা চালু হওয়ায় প্রতিদিন সকাল ৮টা হতে দুপুর ২টা পর্যন্ত রোগী দেখছেন কর্তব্যরত চিকিৎসকগণ। শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার (আরএমও) ডা.মিজানুর রহমান বার্তা বাজারকে জানিয়েছেন,আগামি মাস থেকে রোগী ভর্তি,অটি সহ অন্যান্য সকল কার্যক্রম শুরু করবেন।তিনি আরও জানান,হাসপাতালে আজ ৬জন রোগী ভর্তি রয়েছেন,এদের মধ্যে ১জন সন্দেহজনক।তাই বর্তমানে করোনা সংক্রমণে আক্রান্তের সংখ্যা নিতান্তই কম।নেই আগের মতন সেই আতংক,ভয় আর উৎকন্ঠা।যেকারণে হাসপাতালের ৯৫ভাগ শয্যা শূন্য হয়ে পড়ে রয়েছে। করোনার প্রকোপ কমে যাওয়ায় হাসপাতালের সকল সার্ভিস ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয়ে উঠছে,আর সে চেষ্টা তাদের অব্যাহত রয়েছে।তবে সবকিছু নির্ভর করছে পরিস্থিতির ওপর।এমনটাই জানিয়েছেন তিনি।

জানা গেছে,২০২০ সালের মার্চ হতে করোনার প্রকোপ বেড়ে যায়,মানুষের মাঝে বিরাজ করে এক অজানা আতংক।সিলেটেও একের পর এক ধরা পড়ে করোনা সংক্রমণে আক্রান্ত রোগী,হুঁ হুঁ করে বাড়তে থাকে এ রোগীর সংখ্যা।সে সময় অনেকেই কোনকিছু ঠিকমতো বুঝে উঠতে না পেরে চিকিৎসা সেবা নিয়ে পড়েন মহাবিপাকে।ঠিক এমন পরিস্থিতিতেই করোনা আক্রান্ত রোগীদের সুষ্ঠু সেবা প্রদানের জন্য সিলেটের শহীদ ডা.শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালকে সিলেটের একমাত্র করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল হিসেবে ঘোষণা করা হয়।এসময়ে সেবা দেয়া হয়েছে প্রায় ১০হাজারেরও বেশী রোগীদের।যাদের একমাত্র আশ্রয়ের কেন্দ্রে পরিণত হয়েছিল সিলেটের শামসুদ্দিন হাসপাতাল।এবার দীর্ঘ দুই বছর পর আবার স্বাভাবিক হচ্ছে শামসুদ্দিন হাসপাতালের আউটডোর ( বহিঃবিভাগ)সহ হাসপাতালের সকল কার্যক্রম ।যদিও গত ১লা জানুয়ারীতে একবার আউটডোর সেবা চালু করেছিলেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।কিন্তু করোনার তৃতীয় ঢেউ উঠলে ১লা ফেব্রুয়ারী তা ফের বন্ধ করে দেয়া হয়।