সিলেটে স্বেচ্ছাসেবক দলের ফরম বিতরণ

0
70

নিউজ ডেস্ক:
সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডের তথ্য, উপাত্ত ফরম বিতরণ করা হয়েছে। শুক্রবার (১২ই নভেম্বর) বাদ মাগরিব নগরীর ভাতালিয়াস্থ সিলেট মহানগর বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।
সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের ১ম যুগ্ম আহবায়ক শাকিল মোর্শেদ এর সভাপতিত্বে স্বেচ্ছাসেবকদলের যুগ্ম আহবায়ক কামরুল হাসান এর পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক আব্দুল ওয়াহিদ সুহেল, প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব আজিজুল হোসেন আজিজ। আমন্ত্রীত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব দেওয়ান জাকির। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক মাসুম ইবনে রাজ্জক রুমেল, তানভির আহমদ চৌধুরী, তুহিন নাগ, আফসর খাঁন, আবু সালেহ মোঃ তাহের, আজিজ খাঁন সজীব।
হাবিবুর রহমান হাবিব এর পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে আর ও উপস্থিত ছিলেন সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক কমিটির সদস্য প্রানেশ দেব,দেওয়ান রেজা মজিদ, মালেক আহমদ, জাহেদ আহমদ, মাসুদ আহমদ কবির, দুলাল আহমদ, রুবেল বক্স, সিলেট জেলা শাখার আহবায়ক কমিটির সদস্য রাসেল আহমদ খান,, ফারুক আহমদ আব্দুস সামাদ ফাহিম, ফাহিম খাঁন, সোলেমান খাঁ।
এছাড়া ও উপস্থিত ছিলেন মাইন উদ্দিন, শেখ রিপন, মোঃ রাব্বানী, বাইন উদ্দিন আনোয়ার, হাবিবুর রহমান, আলিম উদ্দিন, আদনান আহমদ, মইন, রবিন। এ সময় উপস্থিত ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মীদের মাঝে তথ্য উপাত্ত ফরম বিতরণ করেন প্রধান অতিথিসহ নেতৃবৃন্দ।নিউজ ডেস্ক:
সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সেবিকা নবনীতা দাসের (২৯) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১২ নভেম্বর) রাত ৯টার দিকে হাসপাতাল সংলগ্ন তার ভাড়াটে বাসা থেকে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় নবনীতার স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ।

বিষয়টি শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে সংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন বিয়ানীবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হিল্লোল রায়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নবনীতা দাস বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেবিকা হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি সম্প্রতি প্রেম করে তার এক সহপাঠীকে বিয়ে করে হাসপাতাল সংলগ্ন একটি বাসায় ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করতেন। তাদের গ্রামের বাড়ি সুনামগঞ্জের শাল্লায়। এ বিয়েতে দুই পরিবারেরই সম্মতি ছিলো না। বিয়ের পর থেকে স্বামীর বেকারত্ব নিয়ে প্রায়ই তাদের মধ্যে ঝগড়া হতো।

শুক্রবার রাত ৯টার দিকে নবনীতার দেহ ঘরের ফ্যানের সঙ্গে ঝুলতে দেখে প্রতিবেশীরা পুলিশে খবর দেন।

ওসি হিল্লোল রায় জানান, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে পুলিশ। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর বলা যাবে কীভাবে মৃত্যু হয়েছে এবং এটি হত্যা না আত্মহত্যা।

লাশ উদ্ধারের পর নবনীতার স্বামীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে বলেন জানান ওসি হিল্লোল।