সিলেটে বেপরোয়া ট্রাক কেড়ে নিলো যুবকের প্রাণ

0
36

নিউজ ডেস্ক:
সিলেটে বেপরোয়া ট্রাকের কারণে আবারও ঘটলো প্রাণহানি। এবার কেড়ে নিয়েছে এক সিএনজি অটোরিকশা মেকানিকের প্রাণ। বুধবার দিবাগত (৩ ফেব্রুয়ারি) রাত দেড়টার দিকে এয়ারপোর্ট রোডের সিলেট ক্যাডেট কলেজ গেইটের সামনে ট্রাকচাপায় হাবিবুর রহমান হাবিব (৩০) নামের ওই যুবক ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান।

হাবিব সিলেটের এয়ারপোর্ট থানাধীন নয়াবাজার মংলিপার আবাসিক এলাকার মৃত মনতাজ আলির ছেলে। এ ঘটনায় একই এলাকার হাবিব নামের আরেকজন গুরুতর আহত হন। তিনি বর্তমানে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

 

মারা যাওয়া হাবিব সিএনজি অটোরিকশার মেকানিক ছিলেন। লাশ ময়না তদন্তের জন্য বর্তমানে ওসমানী হাসপাতালে রয়েছে।

দুর্ঘটনা ও মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের এয়ারপোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইনুল জাকির।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দিবগাত রাত দেড়টার দিকে সিলেট ক্যাডেট কলেজ গেইটের সামনে সিলেটের দিকে আসা একটি বেপরোয়া ট্রাক এয়ারপোর্ট থানার নয়াবাজারের দিকে যাওয়া একটি সিএনজি অটোরিকশাকে চাপা দেয়া। এসময় ঘটনাস্থলেই অটোরিকশার যাত্রী হাবিবুর রহমান হাবিব মারা যান। এসময় অটোরিকশা চালক হাবিব মিয়া গুরুতর আহত হলে তাকে উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

দুর্ঘটনার পর সিলেট এয়ারপোর্ট রোড প্রায় ২ ঘণ্টা অবরোধ করে রাখেন স্থানীয় জনতা। এসময় রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন তারা। পরে এয়ারপোর্ট থানার একদল পুলিষ ঘটনাস্থরে এসে হাবিবের লাশ উদ্ধার করে এবং সড়ক অবরোধ তুলে দেয়।

এদিকে, সিএনজি অটোরিকশাকে চাপা দিয়ে বেপরোয়া ট্রাকটি দ্রুত পালিয়ে যায়। এখন (বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা) পর্যন্ত ঘাতক সে ট্রাকের হদিস পায়নি পুলিশ।

এয়ারপোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইনুল জাকির বলেন, আমরা ঘটনাস্থলের আশপাশ এবং নগরীর আম্বরখানা এলকার সিসি ক্যামেরাগুলোর ফুটেজ দেখে ট্রাকের গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করে ট্রাকটি জব্দ এবং এর চালককে আটকের সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাচ্ছি।