সিলেটে পালিত হচ্ছে ঈদ উল ফিতর

0
64

নিউজ ডেস্ক:
দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধনার পর সিলেটে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উদযাপন করছেন সিলেটবাসী। সকালে ঈদের জামায়াত শেষে ঘরে ঘরে এখন ঈদের খুশি বইছে। এই আনন্দ থেকে কোন শ্রেণী পেশার মানুষ বাদ যায়নি। ধনী-গরীব থেকে শুরু করে আবাল-বৃদ্ধ-বনিতা সকলেই ঈদের খুশিতে মাতোয়ারা। ঈদের জামাত পড়ে এখন যে যার মতো বেরিয়ে পড়েছেন ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে।

সিলেটে প্রায় সব এলাকাতেই সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ৯টার মধ্যে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। সিলেটে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয় সিলেটের ঐতিহ্যবাহী শাহী ঈদগাহ। সকাল সাড়ে ৮ টায় শাহী ঈদগাহে ঈদের প্রধান জামায়াতে ইমামতি করেন মাওলানা রশিদুর রহমান ফারুক শায়েখে বর্ণভী। এ জামায়াতে সিলেটের সকল দলের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ এককাতারে এসে ঈদের জামাত আদায় করেছেন।

ঈদের জামাত শেষে ঘরে ফিরে খাওয়া ধাওয়া শেষ করে যার যার মতো বেরিয়ে পড়েছেন ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে। সবার মাঝে এখন উৎসব বিরাজ করছে। বিশেষ করে শিশুদের আনন্দ একটু বেশি। ঈদের জামাত শেষে বাড়ির বড় কর্তারা ঘরে ফেরার সাথে সাথে ঈদের সেলামি আদায়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ে তারা। হইহুল্লুড় করে চলছে তাদের ঈদ উদযাপন।

এদিকে, হযরত শাহজালাল রহ. দরগাহে হযরত শাহজালাল রহ. মাজার মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয় সাড়ে ৮টায়। নামাজের আগে বয়ান পেশ করে দরগাহ মাদরাসার শায়খুল হাদিস মুফতি মুহিব্বুল হক গাছবাড়ী।

হযরত শাহপরান রহ. মাজার মসজিদে ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হয় সকাল সাড়ে ৮টায়। সিলেট জেলা প্রশাসক কার্যালয় এর সামনের মাঠে ঈদুল ফিতরের জামাত সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হয়। নামাজ ইমামতি করেন কারেক্টর জামে মসজিদের ইমাম ও খতিব হাফিজ মাওলানা শাহ আলম। বন্দরবাজার হাজী কুদরত উল্লাহ জামে মসজিদে ঈদুল ফিতরের মোট ৩টি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। যথাক্রমে-সকাল সাড়ে ৭টা, সাড়ে ৮টা ও সাড়ে ৯টায়।

পুলিশ লাইন্স জামে মসজিদে ঈদের জামাত সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হয়। টিলাগড়স্থ মাদানী ঈদগাহে সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত হয়। নগরীর জিন্দাবাজারের বায়তুল আমান জামে মসজিদে ঈদের জামাত সকাল সাড়ে ৮টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। আর নগররী রেজিস্টারি মাঠে ঈদের জামাত সকাল ৮টায় অনুষ্ঠিত হয়।