মৌলভীবাজারে আমেরিকা প্রবাসীর বাড়িতে হামলা

0
23

নিউজ ডেস্ক:
মৌলভীবাজার জেলা শহরে এক আমেরিকা প্রবাসীর বাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে কমপক্ষে ৪জন আহত হয়েছেন। ওই বাড়িতে বসবাসরত ভাড়াটিয়া পরিবারকে উচ্ছেদের জন্য হামলা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন জনপ্রশাসনে মন্ত্রণালয়ে সংযুক্তিতে থাকা এক কর্মকর্তার স্ত্রী।

মো. ফারুক আহমদ নামের ওই কর্মকর্তা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে সংযুক্তি হবার আগে মৌলভীবাজার জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

মো. ফারুক আহমদের স্ত্রী কানিজ ফাতিমা (৪৫) জানান, ৬ মার্চ রবিবার বাংলাদেশ সময় রাত ৮ দিকে মৌলভীবাজার জেলা শহরের কাজিরগাঁও এলাকার আমেরিকার প্রবাসী আফিয়া বেগমের বাসার তত্ত্বাবধায়ক হেলাল আহমদের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী হামলা চালায়। এ ঘটনায় তাদের ২ পুত্র ইমাম মোহাম্মদ বোখারি (১৯), ইমাম আহমদ সাহাবি ( ১৭) গৃহকর্মী লিজা বেগম (১৭), শাহানা বেগম (৪৫) আহত হয়েছেন।

তারা মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার আধুনিক সদর হাসাপাতালের ৩ তলার কেবিনে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এরমধ্যে গৃহকর্মী লিজার অবস্থা গুরুতর বলে জানা যায়।

এ ব্যাপারে বাড়ির তত্ত্বাবধায়ক হেলাল আহমদের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন দীর্ঘদিন থেকে তাদেরকে বাড়ি ছেড়ে দেবার নোটিশ করা হলেও তিনি প্রশাসনের ভয়ভীতি দেখিয়ে জোরপূর্বক বাড়িতে বসবাস করে আসছেন। গত ৬ মাস থেকে উনার বাসা ভাড়াও প্রদান করছেন না বলে জানান প্রবাস জার্নালকে।

হেলাল আহমদের স্ত্রী সীমা বেগম জানিয়েছেন, বাড়ি মালিক দীর্ঘদিন থেকে প্রবাসে রয়েছেন তিনি দেশে এসে ওই বাসায় উঠতে চাইলেও তিনি দেশে আসতে পারছেন না ভাড়াটিয়া বাড়ি না ছাড়ায়। সীমা বেগম আরো বলেন, ওই ভাড়াটিয়া বাসায় নেয়ার পর থেকে প্রত্যেক মাসে নতুন নতুন অভিযোগ তৈরি করে তাদের হয়রানি করছেন, বাথরুমের কমোড কেন ছোট, দরজার চৌকাঠ থেকে কেন গুড়া বের হয় প্রতিবেশী বাচ্চারা কেন হাল্লা চিৎকার করে এসব আজব আজব অভিযোগ নিয়ে বাসা দখল করে আছেন।

আবার বাসা ছেড়ে দিচ্ছেন না নোটিশ করা সত্ত্বেও। তাই আজ তারা বাধ্য হয়ে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছেন। বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার সময়ে ওই মহিলা তাদের হুমকি প্রদান করেছিলেন রাতে তাদের দেখিয়ে দেবেন আর এখন তারা উল্টো অভিযোগ তৈরি করেছেন।

বাসাটি কাজিরগাঁও এলাকার প্রাক্তণ পৌর কমিশনার মো. আবদুল হাইয়ের কন্যা আমেরিকা প্রবাসী আফিয়া বেগমের। তাঁর স্বামীর নাম হারুন অর রশীদ। সূত্র: প্রবাস জার্নাল