মালয়েশিয়ায় বিদেশিদের দ্রুত বেতন নিশ্চিত করতে পর্যবেক্ষণ করবে সরকার

0
37

নিউজ ডেস্ক:
বিদেশি কর্মীরা ঠিকমতো ও দ্রুত বেতন পাচ্ছেন কি না সে বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করবে মালয়েশিয়া সরকার। দেশটির মানবসম্পদ মন্ত্রণালয় বেতন পর্যবেক্ষণ ব্যবস্থা হিসেবে ই-ওয়েজ বাস্তবায়নের প্রস্তাব করেছে।

একথা জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী দাতুক সেরি এম. সারাভানান।

তিনি বলেন, ‘বিদেশি কর্মীদের দ্রুত মজুরি প্রদান নিরীক্ষণের জন্য eWages উদ্যোগটি শীঘ্রই বাস্তবায়ন করা হবে। প্রস্তাবিত ব্যবস্থাটি এই বছরের ১২ জানুয়ারী মন্ত্রিসভা অনুমোদন দিয়েছিলো।

সারাভানান বলেন, আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার (আইএলও) সদস্য হিসেবে মালয়েশিয়া জোরপূর্বক শ্রমের ১১টি সূচক কঠোরভাবে পর্যবেক্ষণ করেছে, যা শ্রমিকদের জন্য উপযুক্ত জীবনযাপনের দিকটিও পর্যবেক্ষণ করে।

বিদেশি কর্মীদের নিয়োগের বাধ্যতামূলক প্রয়োজনীয়তা পূরণে নিয়োগকর্তাদের স্ট্যান্ডার্ড মিনিমাম অফ হাউজিং অ্যান্ড অ্যামেনিটিস অ্যাক্ট ১৯৯০ (অ্যাক্ট ৪৪৬) সম্পূর্ণরূপে মেনে চলা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘মন্ত্রণালয় বিদেশি কর্মীদের কার্যকর ও সমন্বিত তত্ত্বাবধানের জন্য পাঁচ বছরের মধ্যে একটি কেন্দ্রীভূত শ্রম কোয়ার্টার (সিএলকিউ) নিয়ন্ত্রণ ও প্রবর্তনের পরিকল্পনা করছে।’

সারাভানান বলেন, মন্ত্রণালয় ২৩ ফেব্রুয়ারি মন্ত্রিসভা থেকে আনুষ্ঠানিক অনুমোদন পাওয়ার পর ইন্দোনেশিয়ার গৃহকর্মীদের আনতে সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) শেষ করার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন ছিল।

তিনি বলেন, ভিয়েতনাম, কম্বোডিয়া, ভারত এবং শ্রীলঙ্কার সাথে সমঝোতা স্মারক সইয়ের জন্য আলোচনা চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। এ পর্যন্ত মন্ত্রণালয় ১০টি উৎস দেশের সাথে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে এবং মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়া এমওইউ চূড়ান্ত করার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।