মালদ্বীপে ব্যবসায়ী হত্যার দায়ে বাংলাদেশির মৃত্যুদণ্ড

0
35

নিউজ ডেস্ক:
মালদ্বীপের ধানগেথি দ্বীপে ব্যবসায়ীকে হত্যার দায়ে শাহ আলম ওরফে সেলিম মিয়া (২৯) নামে এক প্রবাসী বাংলাদেশিকে মৃত্যদণ্ডের আদেশ দিয়েছে দেশটির আদালত। রবিবার দেশটির একটি আদালত এ রায় দেন।

মালদ্বীপের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম আভাসের খবরে বলা হয়, সাজাপ্রাপ্ত বাংলাদেশি ধানগেথি দ্বীপে ওই বৃদ্ধ ব্যবসায়ীর দেখাশোনার কাজ করতেন।

গত ১৫ অক্টোবর দ্বীপের একটি পরিত্যক্ত বাড়ির কুয়া থেকে মাহমুদ আবুবাকুরুর (৫৭) লাশ উদ্ধার করা হয়। এর পরদিন সেলিম মিয়া গ্রেপ্তার হন।

সেলিমের বিরুদ্ধে হত্যাকাণ্ড ও মরদেহের প্রতি অবমাননার অভিযোগে মামলা হয়েছিল। তদন্ত চলাকালে নিজের অপরাধ স্বীকার করেন তিনি। আদালতে দুটি অভিযোগেই দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন বাংলাদেশি এই প্রবাসী।

আদালতে মাহমুদ জানিয়েছেন, অর্থের জন্যই ওই ব্যবসায়ীকে হত্যা করেছেন। ওই সময় তাঁর ‘মাথায় শয়তান ভর করেছিল’।

রায় ঘোষণার আগে নিহত মাহমুদ আবুবাকুরুর পরিবারের জবানবন্দি নেন আদালত। সেখানে তাঁরা আদালতের কাছে মাহমুদকে হত্যার সমপরিমাণ সাজার আবেদন করেন। একই সঙ্গে মৃত্যুদণ্ডের সাজার বিকল্প হিসেবে ক্ষতিপূরণ নেওয়ার বিষয়টিও নাকচ করেন পরিবারের সাত সদস্য।

এদিকে মৃত্যুদণ্ড ছাড়াও মরদেহের অবমাননার দায়ে সেলিমকে আলাদাভাবে ১ মাস ২৪ দিন কারাদণ্ডের সাজা দেওয়া হয়েছে। তবে বিচারক বলেছেন, এর মধ্যেই সেলিম এ পরিমাণ সময় কারাগারে কাটিয়েছেন। ফলে তাঁকে নতুন করে এই সাজা পেতে হবে না।

এদিকে সেলিম মিয়ার রায় ঘোষণার আগে নিহত মাহমুদ আবুবাকুরুর পরিবারের জবানবন্দি নেন আদালত। সেখানে তাঁরা আদালতের কাছে মাহমুদকে হত্যার সমপরিমাণ সাজার আবেদন করেন। একই সঙ্গে মৃতের পরিবারের সাত সদস্য মৃত্যুদণ্ডের সাজার বিকল্প হিসেবে ক্ষতিপূরণ নেওয়ার বিষয়টিও নাকচ করেন বলে জানিয়েছে সংবাদ মাধ্যম আভাস।