বিয়ের পর যার ফ্ল্যাটে উঠবেন ভিকি-ক্যাট

0
74

বিনোদন ডেস্ক:
বলিউড অভিনেত্রী ক্যাটরিনা কাইফ ও ভিকি কৌশলের চার হাত এক হয়েছে মাত্র একদিন আগেই। রাজস্থানের প্রাচীন দুর্গে গোধুলির আলোয় চোখে চোখ রেখে একে অপরের জীবনসঙ্গী হওয়ার অঙ্গীকার করেছেন। বলিউডের এ দুই তারকার জাঁকজমকপূর্ণ বিয়ের একটি ছবি দেখার জন্য দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করেছিলেন অনুরাগীরা। বৃহস্পতিবার (৯ ডিসেম্বর) রাতে সেই ছবি প্রকাশ্যে আসতেই সবাই মুগ্ধ হয়েছেন নতুন বউ ক্যাটরিনা এবং বর ভিকিকে দেখে।

এরপরও আসে নানা মহলের শুভেচ্ছা। বলিউড থেকেও শুভেচ্ছার বন্যায় ভেসে গিয়েছেন নবদম্পতি। তার মধ্যে অবশ্য নজর কাড়লো আনুশকা শর্মার পোস্ট। তিনি শুধু নবদম্পতিকেই নয়, নতুন প্রতিবেশীকে স্বাগত জানালেন। এবার থেকে মুম্বাইয়ে একই আবাসনের পাশাপাশি ফ্ল্যাটে থাকবেন তারা!

রাজস্থানের বারওয়াড়া দুর্গে বিয়ের আচার-অনুষ্ঠান সেরে সরাসরি মুম্বাইয়ের জুহুর নতুন ফ্ল্যাটে উঠবেন ভি-ক্যাট। সূত্রে এমনই খবর। জুহুতে ‘রাজমহল’ নামে এক আবাসনে বড়সড় ফ্ল্যাট আগামী পাঁচ বছরের জন্য ভাড়া নিয়েছেন ভিকি। শোনা যাচ্ছে, এক কোটি ৭৫ লাখ টাকা অগ্রিম দিয়ে এই ফ্ল্যাটটি বুক করেছেন ‘উরি’র নায়ক। এই রাজমহলের নতুন বাসিন্দা হতে চলেছেন ভিকি-ক্যাটরিনা। এর পাশেই দুটি বিশাল ফ্ল্যাটের বাসিন্দা ভারতীয় ক্রিকেটের সদ্য বিদায়ী অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও বলিইড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা।

 

আগেই ভিকি কৌশল আর ক্যাটরিনা কাইফের যৌথ বাসস্থানের কথা শুনেছিলেন আনুশকা। অপেক্ষাই করছিলেন, কবে ইন্ডাস্ট্রির সহকর্মীরা প্রতিবেশী হয়ে উঠবেন। বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিক বিয়ের পর নবদম্পতিকে শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে বেশ মজার পোস্টই করলেন বিরাটপত্নী। ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে তিনি ভি-ক্যাটের বিয়ের একটি ছবি দিয়ে লিখেছেন, অভিনন্দন তোমাদের দুজনকে। আজীবন দুজন এভাবেই প্রেমে থেকো, বোঝাপড়ার মধ্যে থেকো। আমি আরও খুশি হচ্ছি যে তোমরা এবার নতুন ফ্ল্যাটে এসে নিজেদের ঘর বাঁধবে। আর আমাদের হাতুড়ির ঠুকঠাক শব্দ শুনতে হবে না। আমারই প্রতিবেশী হয়ে তোমরা আসছো।

রাজস্থানের দুর্গে বিলাসবহুল বিয়েতে ভিক-ট্রিনার অতিথি তালিকা ছিল খুবই সংক্ষিপ্ত। শুধু আত্মীয়-পরিজন এবং ঘনিষ্ঠ বন্ধুবান্ধবরাই বলিউডের দুই তারকার বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। তাদের মোটেই খালি হাতে ফেরাননি নবদম্পতি। বেতের ঝুড়ি ভরতি মিষ্টি, ড্রাই ফ্রুটস ‘রিটার্ন গিফট’ হিসেবে পেয়েছেন তারা।

সঙ্গে একটি সুন্দর নোট। তাতে লেখা – দূর এবং কাছের যারা আমাদের এই অনুষ্ঠানে এসেছেন, তাদের সবাইকে অশেষ ধন্যবাদ। সবাই যে আমাদের সঙ্গে রয়েছেন, তা উপলব্ধি করে আমরা অত্যন্ত ভাগ্যবান মনে করছি। আপনাদের আশীর্বাদ, ভালবাসা, স্পর্শে আমরা পরিপূর্ণ। এটাই আনন্দানুষ্ঠানের শুরু, আরও অনেক কিছু একসঙ্গে উদযাপন করবো।