বিক্রিত পণ্য ফেরত নেওয়ার বিষয়ে যা বলে ইসলাম

0
48

মাইমুনা আক্তার, অতিথি লেখক:
কেনা-বেচা, ব্যবসা-বাণিজ্য ও আর্থিক লেনদেন মানুষের জীবনের অংশ। ইসলাম যেহেতু একটি পূর্ণাঙ্গ জীবন ব্যবস্থা, তাই এগুলোতেও ইসলামের নির্দেশনা অনুসরণ করা আবশ্যক। এতে মানুষের অধিকার রক্ষার পাশাপাশি ইবাদত-বন্দেগির সওয়াবও লাভ হয়।

ব্যবসায়ীদের সমাজে একটি প্রথা প্রচলিত আছে, তা হলো, বিক্রিত পণ্য ফেরত নেওয়া হয় না।’ অনেক দোকানদার তাদের দোকানে এ নিয়মটি বড় করে লিখে রাখেন।

‘বিক্রীত পণ্য ফেরত নেওয়া হয় না।’

প্রশ্ন হলো, এভাবে ফেরত না নেওয়ার শর্ত জুড়ে দিয়ে পণ্য বিক্রয় করা কি জায়েজ? জবাব হলো, এমন পূর্বশর্তে পণ্য বিক্রি করা জায়েজ। ক্রেতা এ শর্ত মেনে নিয়ে পণ্য ক্রয় করলে বিক্রেতা দায়মুক্ত হয়ে যাবেন। এবং ক্রেতাকেও অবশ্য পণ্যটি বুঝে নেওয়ার সময় ভালোভাবে যাচাই করে বুঝে নিতে হবে। কারণ পণ্য বুঝে নিয়ে চলে যাওয়ার পর কোনো ত্রুটি প্রকাশ পেলে তিনি বিক্রেতাকে ধরতে পারবেন না এবং বিক্রেতা পণ্য ফেরত বা ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য থাকবেন না। (মুয়াত্তা ইমাম মুহাম্মদ, হাদিস : ৩৩৭; শরহু মুখতাসারিত তাহাবি : ৩/৭২; খুলাসাতুল ফাতাওয়া : ৩/৬৯)

ইবনে উমর (রা.) সূত্রে আল্লাহর রাসুল (সা.) বলেন, যখন দুই ব্যক্তি ক্রয়-বিক্রয় করে, তখন তাদের উভয়ে যতক্ষণ বিচ্ছিন্ন না হবে অথবা একে অপরকে ইখতিয়ার প্রদান না করবে, ততক্ষণ তাদের উভয়ের ইখতিয়ার থাকবে। এভাবে তারা উভয়ে যদি ক্রয়-বিক্রয় করে তবে তা সাব্যস্ত হয়ে যাবে। আর যদি তারা উভয়ে ক্রয়-বিক্রয়ের পর বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় এবং তাদের কেউ যদি তা পরিত্যাগ না করে তবে ক্রয়-বিক্রয় সাব্যস্ত হয়ে যাবে। (বুখারি, হাদিস : ২১১২)
ক্রয়-বিক্রয়ে নম্রতা অবলম্বন

কিন্তু কোনো ব্যবসায়ী যদি ক্রেতার যৌক্তিক অপারগতার কারণে ক্রয়-বিক্রয় সাব্যস্ত হয়ে যাওয়ার পরও মানবিক দৃষ্টিতে বিক্রীত পণ্য ফেরত নেয়, তবে সে এর জন্য মহান আল্লাহর কাছে উত্তম প্রতিদান পাবে। কারণ, ক্রয়-বিক্রয় নম্রতা অবলম্বন করার দ্বারা আল্লাহর রহমত পাওয়া যায়।

জাবির ইবনে আবদুল্লাহ (রা.) থেকে বর্ণিত, আল্লাহর রাসুল (সা.) বলেছেন, ‘আল্লাহ এমন ব্যক্তির প্রতি রহমত বর্ষণ করেন যে নম্রতার সঙ্গে ক্রয়-বিক্রয় করে ও পাওনা ফিরিয়ে চায়।’ (বুখারি, হাদিস : ২০৭৬)

বিক্রীত জিনিস ফেরত নেওয়ার সওয়াব

সুবহানাল্লাহ, আর নম্রতার স্তর যদি এ পর্যায়ে পৌঁছে যে— ক্রেতার যৌক্তিক অজুহাত আমলে নিয়ে আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য তাকে সহযোগিতা করার জন্য বিক্রীত পণ্য ফেরত নেয়, তবে আল্লাহ তাকে ক্ষমা করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত হাদিসে রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি কোনো মুসলিমের (অনুরোধে তার) সঙ্গে সম্পাদিত ক্রয়-বিক্রয়ের চুক্তি বাতিল করবে আল্লাহ তার গুনাহ ক্ষমা করে দেবেন।’ (আবু দাউদ, হাদিস : ৩৪৬০)
মহান আল্লাহ কতই না দয়ালু। যারা মহান আল্লাহর বান্দাদের প্রতি দয়া করে, তিনি তাদেরও তার দয়ার চাদরে আবৃত করে নেন।