পাবজির নেশায় ডুবে মা-ভাই-বোনকে গুলি করে হত্যা কিশোরের

0
64

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
অনলাইনে পাবজি গেইম খেলা শুরুর কয়েকদিন পর এই খেলার উন্মাদনা থেকে পরিবারের চার সদস্যকে গুলি চালিয়ে হত্যা করেছে পাকিস্তানের এক কিশোর। এই ঘটনার পর দেশটির পুলিশ সোমবার অত্যন্ত জনপ্রিয় এই গেইম নিষিদ্ধের সুপারিশ করেছে।

পুলিশ বলছে, আলী জৈন নামের ওই কিশোর তার মা, দুই বোন এবং এক ভাইকে গত ১৮ জানুয়ারি গুলি চালিয়ে হত্যা করেছে। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে সে জানিয়েছে, অনলাইনে পাবজি গেইম খেলাই তাকে সহিংসতার দিকে ঠেলে দিয়েছে।

দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় শহর লাহোরে এই ঘটনা ঘটেছে। হত্যাকাণ্ডের তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তা ইমরান কিশওয়ার সাংবাদিকদের বলেছেন, এ ধরনের ঘটনা এটিই প্রথম নয়। যে কারণে আমরা এই গেইম নিষিদ্ধের সুপারিশ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

পাবজি (PUBG) হলো একটি অনলাইন মাল্টিপ্লেয়ার ‘ব্যাটল রয়্যাল’ গেইম; যেখানে যুদ্ধের ময়দানে শত্রুর বিরুদ্ধে লড়াই করে শেষ পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারলেই বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। কিশওয়ার বলেছেন, ১৮ বছর বয়সী কিশোর আলী তার কক্ষে একেবারে বিচ্ছিন্ন থাকতো। পাবজি খেলার প্রতি তার নেশা ছিল।

লাহোর পুলিশের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে পাকিস্তানি দৈনিক ডন বলছে, আলী তার পরিবারের সদস্যদের এই কল্পনা থেকে গুলি করেছে যে, তারা আবার জীবিত হবেন। সাধারণত পাবজি গেইমে যা ঘটে।

পাবজিকে প্রায়ই ব্যাপক জনপ্রিয় বই এবং চলচ্চিত্র সিরিজ ‌‘দ্য হাঙ্গার গেইমস’র সাথে তুলনা করা হয়। বর্তমানে পাবজি গেইম বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় মোবাইল গেইম হয়ে উঠেছে।

সহিংস আধেয়ের কারণে এর আগে পাকিস্তানের টেলিকম কর্তৃপক্ষ সাময়িকভাবে পাবজি গেইমটি ব্লক করে দিয়েছিল। ভারত, চীনসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে জনপ্রিয় এই গেইম সাময়িক বা স্থায়ীভাবে নিষিদ্ধ রয়েছে।