নামাজ পড়ে বাড়ি ফেরার পথে যুবককে গুলি করে হত্যা

0
79

নিউজ ডেস্ক:
কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় নামাজ পড়ে বাড়ি ফেরার পথে এক যুবককে গুলি ও ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে দুবৃর্ত্তরা।

রবিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার হ্নীলা পশ্চিম লেদার নুরালী পাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম ঈমান হোছন। তিনি ওই এলাকার আব্দুর রহিমের ছেলে।

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এছাড়া হত্যা করার পর লাশ গুমের চেষ্টা করা হলে জনতার সহায়তায় পাহাড়ি ঘোনা এলাকা থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায় পুলিশ।

নিহতের বড় ভাই সাদ্দাম হোছন জানান, রাতে ঈমান হোছন মসজিদে এশার নামাজ আদায় করে বাড়ি ফিরছিল। হঠাৎ স্থানীয় আবুল হোছনের ছেলে আব্দুল খালেক প্রকাশ, আবদুল খালেক, আব্দুর রহমান, আব্দুল আউয়াল, আবুল কালামের ছেলে নাসিম, আব্দুইয়াসহ ১০/১৫ জন ঈমান হোছনকে গুলিবর্ষণ ও এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। পরে লাশ টেনে-হেঁছড়ে পাহাড়ের ভেতরে নিয়ে যায়। জানতে পেরে নিহতের বাবা ও স্থানীয় লোকজন নিয়ে পাহাড়ে গিয়ে জাফরের ঝিরি এলাকা থেকে মৃত অবস্থায় ঈমান হোছনকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে এবং পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করে।

খবর পেয়ে টেকনাফ মডেল থানার এসআই জাহিদ হাসানসহ পুলিশ সদস্যরা মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

টেকনাফ মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান জানান, নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করলে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। সৌজন্যে : ঢাকাটাইমস