দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখার দোয়া

0
48

ধর্ম ডেস্ক:
আল্লাহ তাআলা মানুষকে পরম যত্নে সৃষ্টি করেছেন। আর মানবদেহের প্রতিটি অঙ্গ প্রত্যঙ্গই গুরুত্বপূর্ণ। ফলে শারীরিক সুস্থতা, দৃষ্টিশক্তি ভালো থাকা ও শ্রবণশক্তির প্রখরতা গুরুত্বপূর্ণ। এগুলো ভালো রাখতে সতর্কতার পাশাপাশি আল্লাহর কাছে দোয়া করা চাই।

আবদুর রহমান ইবনে আবু বকর (রা.) থেকে বর্ণিত, আমি আমার পিতাকে বললাম, হে আব্বাজান! আমি আপনাকে প্রতিদিন ভোরে ও সন্ধ্যায় তিনবার বলতে শুনি— ‘হে আল্লাহ! আমার দেহ সুস্থ রাখুন। হে আল্লাহ! আমাকে সুস্থ রাখুন আমার শ্রবণ ইন্দ্রিয়ে। হে আল্লাহ! আমাকে সুস্থ রাখুন আমার দৃষ্টিশক্তিতে। আপনি ছাড়া কোনো ইলাহ নাই।’ তিনি বলেন, ‘আমি রাসুলুল্লাহ (সা.)-কে এ বাক্যগুলো দ্বারা দোয়া করতে শুনেছি। সে জন্য আমিও তার নিয়ম অনুসরণ করতে ভালোবাসি।’ (আবু দাউদ, হাদিস : ৫০৯০)

দোয়াটি হলো (আরবি) :

َاللّهمَّ عَافِنِي فِي بَدَنِيْ اللَّهمَّ عَافِنِيْ فِي سَمْعِيْ اللَّهمَّ عَافِنِي فِي بَصَرِي لَا إلهَ إلَّا أنْت

উচ্চারণ : আল্লাহুম্মা আ-ফিনি ফি বাদানি, আল্লাহুম্মা আ-ফিনি ফি সাম-ই, আল্লাহুম্মা আ-ফিনি ফি বাসারি, লা-ইলাহা ইল্লা আনতা।

অর্থ : হে আল্লাহ! আমার দেহ সুস্থ রাখুন। হে আল্লাহ! আমাকে সুস্থ রাখুন আমার শ্রবণ ইন্দ্রিয়ে। হে আল্লাহ! আমাকে সুস্থ রাখুন আমার দৃষ্টিশক্তিতে। আপনি ছাড়া কোনো উপাস্য নাই।

চোখের অসুস্থতা নিরাময়ের দোয়া

চোখ ওঠা কিংবা চোখে কোনো ধরনের অসুবিধা দেখা দেওয়া উদ্বেগজনক। নানা কারণে মানুষের চোখে সমস্যা হয়। চোখ ওঠা থেকে শুরু করে দৃষ্টিশক্তিও হ্রাস পায়। চোখের সব সমস্যা দূরে ও দৃষ্টিশক্তি ফিরে আমল ও দোয়া এখানে উল্লেখ করা হলো।

আহমাদ শাকাল ইবনে হুমাইদ (রা.) বলেন, আমি বললাম- হে আল্লাহর রাসুল! আমাকে দোয়া শিখিয়ে দিন। তখন তিনি (নিম্নোক্ত দোয়া) বললেন-

দোয়াটির আরবি :

اللَّهُمَّ إِنِّي أَعُوذُ بِكَ مِنْ شَرِّ سَمْعِي وَمِنْ شَرِّ بَصَرِي وَمِنْ شَرِّ لِسَانِي وَمِنْ شَرِّ قَلْبِي وَمِنْ شَرِّ مَنِيِّي

উচ্চারণ : আল্লাহুম্মা ইন্নি আউজুবিকা মিন শাররি সাময়ি, ওয়া মিন শাররি বাসারি, ওয়া মিন সাররি লিসানি, ওয়া মিন সাররি ক্বালবি, ওয়া মিন সাররি মানিয়্যি।

অর্থ : হে আল্লাহ! আমি তোমার কাছে আমার কানের অপকারিতা, চোখের অপকারিতা, জবানের অপকারিতা, অন্তরের অপকারিতা এবং বীর্জের অপকারিতা থেকে আশ্রয় চাই। (আবু দাউদ, হাদিস : ১৫৫১)

সুতরাং যাদের চোখে সমস্যা বা অসুস্থতা রয়েছে তারা শুধু এভাবে বলতে পারে যে—

اَللَّهُمَّ اِنِّى اَعُوْذُبِكَ مِنْ شَرِّ بَصَرِىْ

উচ্চারণ : আল্লাহুম্মা ইন্নি আউজুবিকা মিন শাররি বাসারি।

অর্থ : হে আল্লাহ! আমি তোমার কাছে আমার চোখের অপকারিতা থেকে আশ্রয় চাই।

দৃষ্টিশক্তি ফিরে পাওয়ার আমল

এছাড়াও যদি কোনো ব্যক্তি চোখের ব্যাথা কিংবা চোখের সমস্যায় আক্রান্ত হয়, তাহলে নিম্নোক্ত আয়াতটি পড়ে চোখে ফুঁ দিলে অথবা হাতের তালু-আঙ্গুলে ফুঁ দিয়ে তা চোখে আলতোভাবে মাসেহ করলে আল্লাহ তাআলা চোখের রোগ নিরাময় করবেন এবং দৃষ্টিশক্তি ফিরিয়ে দেবেন বলে ওলামায়ে কেরাম বলেছেন।

কোরআনের আয়াতটি হলো :

فَكَشَفْنَا عَنكَ غِطَاءَكَ فَبَصَرُكَ الْيَوْمَ حَدِيدٌ

উচ্চারণ : ফাকাশাফনা আংকা গিত্বাআকা ফাবাসারুকাল ইয়াওমা হাদিদ।

অর্থ : তোমার সামনে থেকে পর্দা উন্মোচন করেছি; অতএব আজ তোমার দৃষ্টি প্রখর। (সুরা ক্বাফ, আয়াত : ২২)

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে চোখের যাবতীয় সমস্যা সমাধানে উল্লেখিত আমলগুলো যথাযথভাবে আদায় করার তাওফিক দান করুন। আমিন।