দুই বছর পর পর্যটকদের স্বাগত জানাচ্ছে লাওস

0
19

নিউজ ডেস্ক:
কোভিড-১৯ সংক্রমণ মোকাবেলার চেষ্টায় দুই বছর লাওসে পর্যটকদের প্রবেশ বন্ধ ছিল। সম্প্রতি পর্যটক ও অন্যান্য দর্শনার্থীদের জন্য ভূমিবেষ্টিত দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশটি পুনরায় খুলে দেয়া হয়েছে। খবর এপির

রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা কেপিএল জানিয়েছে, সম্প্রতি মহামারী নিয়ন্ত্রণের জন্য গঠিত সরকারি সংস্থার প্রধান থিপফাকন চানথাভংসা সীমান্ত বিধিনিষেধ তুলে দেয়ার ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, লাউসের নাগরিক ও দেশে প্রবেশকারী বিদেশীদের জন্য এখনো কভিড-১৯ টিকার ছাড়পত্র কিংবা ভাইরাস পরীক্ষার প্রয়োজন হবে। ১২ বছর বা তার বেশি বয়সী ভ্রমণকারীরা টিকার ছাড়পত্র ছাড়াও দেশে প্রবেশ করতে পারবেন। এক্ষেত্রে তাদের যাত্রার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে কভিড এন্টিজেন পরীক্ষার নেতিবাচক ফল দেখাতে হবে।

কোভিডজনিত বিধিনিষেধ শিথিল করার অংশ হিসেবে পর্যায়ক্রমে দেশটির কারাওকে পার্লারসহ বিনোদন কেন্দ্রগুলো পুনরায় খুলে দেয়া হবে। তবে অবশ্যই কভিড নিয়ন্ত্রণ বিধি মেনে চলতে হবে। এরই মধ্যে দেশটির সব সীমান্ত ক্রসিং পুনরায় খুলে দেয়া হয়েছে। মহামারী শুরু হওয়ার আগে ২০১৯ সালে রেকর্ড ৪৭ লাখ ৯০ হাজার পর্যটক দেশটি ভ্রমণ করেছিল। ২০২০ সালে সংখ্যাটি ৮ লাখ ৮৬ হাজার ৪০০ জনে নেমে আসে। ২০২১ সালের পরিসংখ্যান এখনো প্রকাশ করা হয়নি।

এর আগে দেশটিতে নতুন সংক্রমণের সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে কমে যাওয়ায় সীমান্ত বিধি তুলে নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। দৈনিক নতুন সংক্রমণের সংখ্যা মার্চে প্রায় ২ হাজার থেকে কমে এখন ২০০ এরও নিচে নেমেছে।