ডাকাত গুজবে আতঙ্ক, প্রমাণে লক্ষ টাকা পুরস্কার

0
19

নিউজ ডেস্ক:
বন্যায় ভাসছে সিলেট ও সুনামগঞ্জের বিস্তীর্ণ এলাকা। টানা বৃষ্টি ও উজানের ঢলে ভাসছে পুরো অঞ্চল। এমন অবস্থায় শনিবার মধ্যরাতে ডাকাতের আক্রমণের গুজবে সয়লাব হয় সামাজিক মাধ্যম। নগরের অনেক এলাকার মসজিদের মাইকে এলাকাবাসীকে সতর্ক করার কথাও জানা যায়।

তবে ডাকাতের আক্রমণের এই তথ্য গুজব বলে জানিয়েছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। ডাকাতির কোন প্রমাণ উপস্থাপন করতে পারলে এক লক্ষ টাকা পুরস্কারের ঘোষণা দিয়েছেন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা আমারএমপির চেয়ারম্যান সুশান্ত দাস গুপ্ত।

শনিবার (১৮ জুন) দিবাগত মধ্যরাতে নগরে ডাকাতের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। নগরে বেশ কয়েকটি মসজিদের মাইকে বিভিন্ন এলাকায় ডাকাত প্রবেশের কথা জানিয়ে এলাকাবাসীকে সচেতন থাকতে বলা হয়। এসময় স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ছড়িয়ে পড়ে এ গুজব।

কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী মাহমুদ জানান, খবর পেয়ে বিভিন্ন এলাকায় যাই। কেউ আতঙ্কিত হবেন না, পুলিশ মাঠে আছে। এগুলো গুজব।

প্রত্যেক জায়গায় পুলিশের টহল জোরদার হয়েছে তাই আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই জানিয়ে সিলেট মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার গৌতম দেব বলেন, সিলেট শহরে ডাকাতি হওয়ার কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। অনেকেই আতঙ্কিত হয়ে ফেসবুকে পোস্ট দিচ্ছেন, কোথাও কোথাও মসজিদে মাইকিং করা হচ্ছে। অহেতুক গুজব না ছড়ানোর জন্য আহবান করছি।

সিলেট মহানগর পুলিশের উত্তরের ডিসি আজবাহার আলী শেখ বলেন, আমরা খবর পেয়ে মহানগরের বিভিন্ন এলাকায় টহল জোরদার করি। এধরনের গুজব কাউকে না ছড়ানোর অনুরোধ জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।

এদিকে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ডাকাতের গুজব ছড়িয়ে আতঙ্ক সৃষ্টির প্রেক্ষাপটে উপযুক্ত তথ্যপ্রমাণে এক লক্ষ টাকা পুরস্কারের ঘোষণা দিয়েছেন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা আমারএমপির চেয়ারম্যান সুশান্ত দাস গুপ্ত। তিনি বলেন, আমাদের অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে একশ্রেণির মানুষ সবসময়ই ফায়দা লুটতে চেষ্টা করে। বন্যার সময়েও এইধরনের গুজব আমরা লক্ষ্য করছি।

ডাকাতির আতঙ্ককে গুজব উল্লেখ করে সুশান্ত বলেন, সিলেটে ডাকাতি হচ্ছে এমন গুজব ছড়ানো হচ্ছে। এইধরনের পোস্ট ফেসবুকে দেওয়া কমপক্ষে দশজনকে তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করতে আমি ব্যক্তিগতভাবে ফোন দিয়ে তথ্য যাচাই করতে চেষ্টা করি। তাদের সবাই দুঃখপ্রকাশ করে জানিয়েছেন ফেসবুকে দেখাদেখি পোস্ট দিয়েছি। এরপর তারা সেটা মুছেও দেন।

তিনি বলেন, সিলেটে এই বন্যা পরিস্থিতিতে কোথাও ডাকাতি হয়েছে কেউ প্রমাণ করতে পারলে তাকে ১ লাখ টাকা নগদ পুরস্কার দেওয়া হবে। আমি নিজে এই পুরস্কার দেবো। ডাকাতির প্রত্যক্ষ সাক্ষী আমাকে আপনার নিজের নাম ও মোবাইল নাম্বার ইমেইল করুন news@amarhabiganj.com এই ঠিকানায়। অথবা আমার হোয়াটসঅ্যাপ নাম্বার +447702020900 এখানে মেসেজ দিন। আমি আপনার সাথে কথা বলতে ২৪/৭ আগ্রহী।