টিকটক তারকা ‘অপু ভাই’-কে নিয়ে সিলেট ছাত্রলীগের কান্ড!

0
127

নিউজ ডেস্ক:

সিলেটে সরকারি কলেজের অডিটোরিয়ামে গত শুক্রবার বিতর্কিত টিকটক তারকা ‘অপু ভাই’-কে নিয়ে রীতিমতো মৌজ-মাস্তি করেছেন কলেজ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই নিয়ম বহির্ভুতভাবে তারা এমনটি করেছেন বলে জানা গেছে।

তবে কর্তৃপক্ষ বিষয়টি জানতে পারে দুদিন পর। জানার পর অনুমতি ছাড়া অডিটোরিয়াম খুলে দেয়ার বিষয়ে কলেজ কর্মচারীকে শোকজ করেছেন কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, ছাত্রলীগের এমন কাণ্ডজ্ঞানহীন কর্মকাণ্ডে বইছে সমালোচনার ঝড়। সুস্থ ধারার বিনোদনের পরিবর্তে অপসংস্কৃতিতে আসক্ত এমন একজনকে নিয়ে মৌজ-মাস্তির ঘটনায় চলছে তোলপাড়। তাছাড়া করোনার সংক্রমণের এই সময়ে প্রায় ৫ শ তরুণ-তরুণী নিয়ে এমন করায় দেখা দিয়েছে মারাত্মক ঝুঁকি।

কলেজ সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র বলেছে, কর্তৃপক্ষকে না জানিয়েই কলেজ অডিটোরিয়াম খুলে এমন কাণ্ড ঘটিয়েছে ছাত্রলীগ। এর আগে নেতাকর্মীরা কলেজ কর্মচারীকে বাধ্য করেছেন অডিটোরিয়াম খুলে দিতে। এ অনুষ্ঠানে কোনো অঘটনা ঘটলে কে নিতো দায়ভার- এ প্রশ্ন সংশ্লিষ্টদের।

এমসি কলেজ ছাত্রাবাস করোনাকালীন পরিস্থিতিতেও খোলা রেখেছিল ছাত্রলীগের বেপরোয়া নেতাকর্মীরা। গণধর্ষণ ঘটনার পর সামনে উঠে আসে ছাত্রাবাসকেন্দ্রিক ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের নানা অপরাধ কর্মকাণ্ড। সিলেট এমসি কলেজ ছাত্রবাসে নিকট অতীতে গণধর্ষণ ঘটনায় সিলেটে ছাত্রলীগ রয়েছে বেকায়দায়। এরই মধ্যে মূল্যবোধহীন সস্তা সংস্কৃতির কথিত তারকা ‘অপু ভাই’-কে নিয়ে এমন কাণ্ড ঘটালেন সিলেট সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ।

সূত্র জানায়, কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই শুক্রবার ‘অপু ভাই’-কে নিয়ে জমজমাট অনুষ্ঠান করেছেন ছাত্রলীগ নেতারা। বিকেল ৫টায় কলেজ অডিটোরিয়ামের তালা  খুলে প্রায় ৫ শ তরুণ-তরুণী নিয়ে করলেন আনন্দ-ফুর্তি। ওইদিন ছাত্রলীগ নেতা রুহেল আহমদসহ অনেক নেতাকর্মী ঘুরঘুর করেছেন ‘অপু ভাইয়ের’ পেছন পেছন।

তবে এরকম ঘটনা যে কলেজ ক্যাম্পাসে ঘটছে তা জানতেন না কলেজের অধ্যক্ষ মাজহারুল ইসলাম- এমনটাই জানালেন তিনি গণমাধ্যমকে।  

তিনি জানান, রোববার এ ঘটনা শুনেন তিনি। শুক্রবারে কলেজে ছিল ৪১তম বিসিএস প্রিলিমিনারী পরীক্ষা। পরীক্ষা শেষে বিকেল সাড়ে ৩টায় ক্যাম্পাস ত্যাগ করেছিলেন তিনি। রোববার এ খবর পাওয়ার পর সংশ্লিষ্টদের তলব করে ঘটনার সত্যতা পান অধ্যক্ষ। তারপর কলেজ কর্মচারী ও অডিটোরিয়ামের চাবিরক্ষক ইদ্রিস আলীকে শোকজ করেছেন তিনি।