জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সিফডিয়া’র আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল

0
67

নিউজ ডেস্ক:
বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সিলেট জেলা ইউনিটের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মির্জা জামাল পাশা বলেছেন, বঙ্গবন্ধু একজন উদার মনের মানুষ ছিলেন। তার উদারতার সুযোগ নিয়ে দেশের উন্নয়ন-অগ্রযাত্রা ক্ষতিগ্রস্ত করতে পাকিস্তানীদের প্রেতাত্মারা পনের আগস্ট বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদেরকে হত্যা করে এদেশে মুলত বাংলাদেশের চেতনার এক বিপরীত ধারার যাত্রা শুরু করে। বেসামরিক সরকারকে উৎখাত করে সামরিক শাসনের অনাচারি ইতিহাস রচিত হতে থাকে। বর্তমানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, সেই ধারা অব্যাহত রাখতে দেশকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে পরিণত করতে আমাদেরকে সম্মিলিতভাবে কাজ করতে হবে।

জাতীয় শোক দিবস জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৬ তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে গণমাধ্যম ও সমাজ উন্নয়নমূলক সংগঠন সিলেট সেন্টার ফর ইনফরমেশন এন্ড ম্যাস-মিডিয়া সিফডিয়া আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। ১৪ আগস্ট শনিবার বিকেলে নগরীর জিন্দাবাজারস্থ সিফডিয়া মিলনায়তনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মির্জা জামাল পাশা আরো বলেন, তরুণ প্রজন্মের কাছে আমাদের মহান নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের জীবনকথা ছড়িয়ে দিতে হবে। তার সংগ্রামী জীবন আদর্শে নতুন প্রজন্মের তরুণদেরকে উজ্জীবিত করতে হবে। বঙ্গবন্ধু দেশের উন্নয়নে, মানুষের কল্যাণে আজীবন কাজ করে গেছেন। আমরা বাঙ্গালি হিসেবে গর্বিত তার মত আর্দশ নেতা পেয়েছি।

সিফডিয়ার চেয়ারম্যান অধ্যাপক শেখ আব্দুর রশিদের সভাপতিত্বে ও সিফডিয়ার নির্বাহী পরিচালক রোটারিয়ান আব্দুল মুহিত দিদারে সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য রোটারিয়ান আব্দুল মালিক সুজন, বাংলাদেশ ফটোজার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের সিলেট বিভাগীয় কমিটির সাবেক সভাপতি ও সিফডিয়ার উপদেষ্টা সাংবাদিক আবদুল বাতিন ফয়সল, বাংলাদেশ ফটোজার্নালিস্ট এসোসিয়েশন সিলেট বিভাগীয় কমিটির সাবেক সভাপতি মামুন হাসান, সিলেট এক্সপ্রেসের স্টাফ রিপোর্টার তাসলিমা খানম বীথি ও সিফডিয়ার খুজগীপুর গ্রাম সমন্বয়কারী আব্দুস শহিদ,মির্জা আব্দুল হামিদ, মো: আব্দুল মোমিন চৌধুরী ও সংবাদকর্মী ফারহান আহমদ চৌধুরী প্রমুখ।

আলোচনা সভার শুরুতেই পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন আল-আমিন। অনুষ্ঠানের শেষে দোয়া পরিচালনা করেন আব্দুল মোমিন।