ইতালিতে বাংলাদেশীদের জন্য সুখবর

0
73

নিউজ ডেস্ক:
ইতালিতে ছয় মাসের বেশি সময় ধরে বসবাসকারী পরিববারগুলোর শিশু ও মায়েদের জন্য সুযোগ সুবিধা পাওয়ার পথ প্রশস্ত করেছে দেশটির সাংবিধানিক আদালত। এতদিন ইতালিতে অভিবাসী পরিবারের শিশুদের জন্য সরকারের দেয়া বোনাস এবং মাতৃত্বকালীন ভাতা পেতে দীর্ঘমেয়াদে থাকার যে বাধ্যবাধকতা ছিল তাকে অসাংবিধানিক বলে ঘোষণা করা হয়েছে।

নতুন রায় অনুযায়ী, অভিবাসী শিশু ও মায়েদের জন্য ইতালি সরকারের দেয়া ভাতা পেতে এখন থেকে আর দীর্ঘকালীন সময় থাকার দরকার নেই। এখন থেকে অভিবাবাসী পরিবারগুলোর ওয়ার্ক পারমিটের মেয়াদ ছয় মাসের বেশি হলে তারা ইতালিয় সরকারের দেয়া শিশু ভাতা এবং মাতৃত্বকালীন ভাতার জন্য যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন।

ইতালির সাংবিধানিক আদালতের এ রায়টি অভিবাসীদের জন্য সুসংবাদ হিসেবে দেখা হচ্ছে। যা তাদের ইতালিতে আবাসিক পারমিটসহ কাজ করার অনুমতি দেবে।

এতদিন ইতালিতে বসবাসকারী নন-ইইউ ভুক্ত দেশগুলোর যেসব নাগরিক দীর্ঘমেয়াদে ইতালিতে অভিবাসী হিসেবে ছিলেন কেবলমাত্র তারা ইতালি সরকারের দেয়া শিশু ও মাতৃত্বকালীন ভাতার জন্য বিবেচিত হতেন। এই সুবিধাগুলো বরাদ্দ ছিল প্রতিটি নতুন জন্ম নেয়া শিশু বা দত্তক নেওয়া শিশুর মায়ের পরিবারের জন্য সংরক্ষিত এবং দুর্বল কর্মজীবী ​​মায়েদের জন্য।

এখন এটি সার্বজনীন করা হয়েছে। যা ২০২২ সালের মার্চ থেকে শিশুদের ভাতা দিয়ে শুরু করে নির্ভরশীল শিশুদেরসহ পরিবারের জন্য বিভিন্ন ব্যবস্থা অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

 

গত বুধবার (১২ জানুয়ারি) জনসাধারণের জন্য শুনানির পর ইতালির সাংবিধানিক আদালতের বিচারকরা রায় দিয়েছেন যে সুবিধার সীমা রেখাটি অসাংবিধানিক। রায়টি এখনও দাখিল করা হয়নি। তবে সাংবিধানিক আদালতের প্রেস অফিস একটি পূর্বরূপ প্রকাশ করেছে। যেখানে বলা হয়েছে যে আদালত, বর্তমান বিধানগুলি ইতালিয় সংবিধানের ৩ এবং ৩১ অনুচ্ছেদের সাথে এবং মৌলিক অধিকারের ইইউ সনদের ৩৪ অনুচ্ছেদের সাথে সাংঘর্ষিক বলে মনে করেছে৷

অসাংবিধানিক নির্ধারিত নিয়মগুলি হলো-যেগুলি তৃতীয়-দেশের নাগরিকদের বাদ দেয়া যারা কাজের উদ্দেশ্যে ইতালিতে আসেন, সেইসাথে যারা কাজ ব্যতীত অন্য উদ্দেশ্যে আসেন, যাদের কাজ করার অনুমতি দেওয়া হয় এবং যার মেয়াদ ছয় মাসেরও বেশি সময় ধরে বসবাসের অনুমতি রয়েছে।