আ.লীগ কর্মীকে পেটালেন যুবলীগ নেতা

0
30

নিউজ ডেস্ক:
নাটোরের সিংড়ায় মো. ইসলাম নামের এক আওয়ামী লীগ কর্মীকে বেধড়ক পিটিয়েছেন যুবলীগ নেতাকর্মীরা। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টায় কলমবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত আওয়ামী লীগ কর্মী মো. ইসলাম কলম গ্রামের এরশাদ আলী মৃধার ছেলে স্থানীয় বাজারের কসমেটিক্স ব্যবসায়ী বলে জানা গেছে।

স্থানীয় কলম বাজারে অন্যায়ভাবে একটি দোকান বসানো নিয়ে প্রতিবাদ করায় তার ওপর কলম ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি গোলাম রাব্বানী ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা রানা হামলা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে আওয়ামী লীগ কর্মী মো. ইসলাম তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে ছেলের সঙ্গে বাড়ি ফিরছিলেন। পথে কলম বাজার এলাকায় প্রতিপক্ষরা তার ওপর অতর্কিত হামলা চালায় এবং বেধড়ক পিটিয়ে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে স্থানীয় লোকজন। বর্তমানে তাকে রাজশাহী মেডিকেল ভর্তি করা হয়েছে।

আহত আওয়ামী লীগ কর্মী ইসলাম বলেন, তার চাচা জাহাঙ্গীর হোসেনের দোকানের সামনে জোর করে আরেকটি দোকান বসানোর চেষ্টা করে ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি গোলাম রাব্বানী ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা রানা। আমি এ বিষয়ে প্রতিবাদ করায় আমাকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। সম্প্রতি যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা রানা বাজারের ব্যবসায়ীর কাছে চাঁদাবাজির অভিযোগে আটক হয়। পরে তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হলে জামিনে বেরিয়ে এসে এলাকায় আবারো অরাজকতা সৃষ্টি করেছে।

তবে কলম ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা রানা আওয়ামী লীগ কর্মী মো. ইসলামের আনা অভিযোগকে মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত বলে দাবি করে বলেন, তারা এ ঘটনার সঙ্গে কোনোভাবেই জড়িত নন। যুবলীগের সভাপতি গোলাম রাব্বানী ও তার রাজনৈতিক সম্মান ক্ষুণ্ণ করতে স্থানীয় একটি চক্র তাদের জড়িয়ে এমন মিথ্যা অভিযোগ তুলেছে। আর ঘটনার সময় তিনি এলাকায় ছিলেন না বলে জানান।

স্থানীয় কলম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মইনুল হক চুনু বলেন, আহত ব্যবসায়ী একনিষ্ঠ আওয়ামী লীগ কর্মী। তার ওপর এভাবে হামলা দুঃখজনক বিষয়। তাকে চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেলে পাঠানো হয়েছে। সুস্থ হয়ে ফিরে এলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সিংড়া থানার ওসি নুর-এ-আলম সিদ্দিকী বলেন, বিষয়টি জানার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। কেউ মুখ খুলতে চাচ্ছে না। তবে অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সৌজন্যে: যুগান্তর