আরবের ‘সাম্মাম’ চাষে স্বপ্ন দেখছেন তিন কৃষক

0
24

নিউজ ডেস্ক:
মরু অঞ্চলের ফসল হিসেবে পরিচিত ‘রক মেলন বা সাম্মাম’। মরুর এই ‘রক মেলন বা সাম্মাম’ এর চাষ শুরু করেছেন ঠাকুরগাঁও জেলার তিন কৃষি উদ্যোক্তা। জেলার সুগার মিলের তেঁতুলতলা এলাকায় ভাতারমারি ফার্মের পশ্চিম পাশে ৩ একর জমি লিজ নিয়ে এই ‘রক মেলন’ চাষ শুরু করেন তারা।

পীরগঞ্জ উপজেলার শিমুলবাড়ি গ্রামের এই তিন উদ্যোক্তা হলেন— মুনজুর আলম, সরিফুল ইসলাম ও নুর মোহাম্মদ। আর এই ‘রক মেলন’ দেশের মাটিতে চাষ করে সফল হবার স্বপ্ন দেখছেন এই তিন কৃষি উদ্যোক্তা।

‘রক মেলন’ নামটি হয়তো অনেকের কাছে অপরিচিত। ‘রক মেলন’কে আবার অনেকেই ‘সাম্মাম’ নামে জানেন। ‘রক মেলন বা সাম্মাম’ মূলত একটি বিদেশি ফলের নাম। রক মেলন চাষ করতে খরচ একটু যদিও বেশি। তার পরেও মনে সাহস রেখে প্রথমবারের মতো ‘রক মেলন’ চাষ শুরু করেছেন এই তিন কৃষক।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সূত্র মতে, জেলায় এবার দ্বিতীয় বারের মতো ‘রক মেলন’ চাষ করা হচ্ছে। এর আগে গতবার সদর উপজেলার রাহুল রায় নামে এক কৃষক সর্ব প্রথম চাষ শুরু করেন। এবার জেলায় মোট ৪ একর জমিতে ‘রক মেলন’ চাষ করা হচ্ছে।

উদ্যোক্তা মুনজুর আলম তিনি জানান, ইউটিউবে ভিডিও দেখে ‘রক মেলন’ চাষ শুরু করেছেন তারা। এটির চাহিদা ও বাজার মূল্য ভালো থাকায় লাভের আশায় ও তাদের দেখে নতুন উদ্যোক্তা সৃষ্টির জন্য এই ‘রক মেলন’ এর চাষ শুরু করেন তারা।

তিনি আরও জানান, ৫০ শতক (এক বিঘা) জমিতে ‘রক মেলন’ চাষ করতে প্রায় লক্ষাধিক টাকা খরচ হতে পারে। ধারণা করা হচ্ছে, ৬ বিঘা মাটিতে ৬ লক্ষাধিক টাকা খরচ হবে তাদের। আবহাওয়া ভালো থাকলে ও ভালো ফলন হলে এখান থেকে প্রায় ১২-১৫ লাখ টাকার ফল বিক্রয় করার আশা করছেন তারা।

মুনজুর জানান, রক মেলন ফলটি সর্বনিম্ন ২ থেকে ৪ কেজি পর্যন্ত ওজন হয়। ফলটি প্রতি কেজি ১৮০ থেকে ২২০ টাকা বিক্রয় হয় বাজারে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর থেকে ‘রক মেলন’ চাষে কৃষকদের সর্বাত্মক সহযোগিতা করার কথা জানিয়ে উপ-পরিচালক মো. আবু হোসেন জানান, কৃষিসমৃদ্ধ জেলা ঠাকুরগাঁও। এই জেলায় দেশি ফল ও শাক-সবজি চাষের পাশা-পাশি বেড়েছে বিদেশি ফলের চাষ। তাই ‘রক মেলন’, ক্যাপসিকাম ও তরমুজসহ বিভিন্ন ফসলের চাষ সম্প্রসারিত হচ্ছে এই জেলায়। কেউ যদি ‘রক মেলন’ চাষ করেন ও সম্প্রসারণ করতে চায় তাহলে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর থেকে কৃষকদের এই বিষয়ে যথাযথ সহায়তা করা হবে।

কৃষকরা এটির চাষ সম্প্রসারণ করলে তারা যেমন অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হবেন। তেমনি পুষ্টির চাহিদা পূরণে ও বাজারে নতুন ফলের সরবরাহ বৃদ্ধি পাবে বলে আশা করেন মো. আবু হোসেন। তিনি জানান, বিভিন্ন দেশে ‘রক মেলন’ একটি জনপ্রিয় ফল। আমাদের দেশে এটি নতুন আসলেও সুপার শপগুলোতে এর ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। সদর উপজেলার কৃষক রাহুল রায় গত বছর ‘রক মেলন’ চাষ করে ভালো মূল্য ও সাড়া পেয়েছেন। এ বছরও সদর ও পীরগঞ্জ উপজেলায় ‘রক মেলন’ চাষ করা হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এই বছরও ‘রক মেলন’ চাষে কৃষকরা লাভবান হবেন।