অন্যের বউকে সাথে রাত কাটাতে গিয়ে খুন

0
131

ঘরে স্ত্রী রেখে অন্যের বউকে নিয়ে রাত কাটাতে গিয়ে খুন হয়েছেন পলাশ হোসেন (৩৮) নামের এক যুবক। শনিবার দুপুরে পাবনার চাটমোহর উপজেলার সমাজ বাজারের পাশে গুমানী নদীর ক্যানেল থেকে তার মাটিচাপা দেয়া লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নারী ঘটিত দ্বন্দ্বের জের ধরে এ খুন হয়েছে বলে পুলিশের প্রাথমিক ধারণা।

পলাশ হোসেন নাটোর জেলার বাগাতিপাড়া উপজেলার পাকা গ্রামের কুরবান আলীর ছেলে। তিনি চাটমোহর উপজেলার সমাজ মিয়াপাড়া গ্রামের আব্দুল মুতালিবের জামাই ছিলেন এবং তিনি ঘরজামাই হিসেবে বসবাস করে আসছিলেন।

এ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে পুলিশ রোজিনা খাতুন সাথী (২৪) নামের এক নারীকে আটক করেছে। সাথী চাটমোহর উপজেলার মূলগ্রাম ইউনিয়নের খতবাড়ি গ্রামের মৃত হাফিজুর রহমানের স্ত্রী।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, পলাশ প্রায় ৩ বছর ধরে চাটমোহর উপজেলার সমাজ মিয়াপাড়া গ্রামের আব্দুল মুতালিবের মেয়ে মৌসুমী খাতুনকে বিয়ে করে সমাজ গ্রামেই বসবাস করে আসছিলেন। পলাশ ড্রাইভার নামে তিনি এলাকায় পরিচিত।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, শুক্রবার দিবাগত রাতে পলাশ সাথী নামের এক মহিলাকে নিয়ে চাটমোহর উপজেলার সমাজ বাজারের পাশে একটি নির্জন বাগানে ছিলেন। রাত তিনটার (শনিবার ভোর রাতে) দিকে ওই মহিলা সমাজ বাজারের নাইটগার্ড আব্দুল, দয়াল ও নজরুলের কাছে গিয়ে বলেন, পলাশ তাকে মোটরসাইকেল যোগে নিয়ে এসেছিলো। কিছু লোক পলাশকে ধরে নিয়ে মারছে।

নৈশ প্রহরীরা চাটমোহরের হান্ডিয়াল পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে খবর দেন। পুলিশ এসে পলাশকে না পেয়ে ওই মহিলাকে পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে নিয়ে যায়। পলাশের মোটরসাইকেলটি জব্দ করে পুলিশ।

এ বিষয়ে হান্ডিয়াল পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পুলিশ ইন্সপেক্টর মফিজুল হক বলেন, শনিবার দুপুরের দিকে চাটমোহরের সমাজ বাজারের পাশে গুমানী নদীর ক্যানেলে পলাশের মৃতদেহ দেখতে পায় এলাকাবাসী। এ সময় মৃতদেহটি কিছুটা মাটি চাপা দেয়া অবস্থায় ছিলো। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে।

চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম জানান, মেয়েলি ঘটনাকে কেন্দ্র করেই পলাশকে হত্যা করা হয়েছে। তাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে ও আটক রোজিনা ওরফে সাথীকে জিজ্ঞাসাবাদে কিছু তথ্য পাওয়া গেছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

চাটমোহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শনিবার সন্ধ্যায় জানান, নিহতের বাবা কুরবান আলী এ ঘটনায় বাদী হয়ে চাটমোহর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।